Breaking News
Home / খোলা হাওয়া / ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলের তান্ডবে খুলনা জেলার বিভিন্ন থানায় ২ হাজার ঘর বিধাস্থো ও ২ জনের মৃত্যু

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলের তান্ডবে খুলনা জেলার বিভিন্ন থানায় ২ হাজার ঘর বিধাস্থো ও ২ জনের মৃত্যু

মোহাঃ রউফ কয়রা খুলনা প্রতিনিধিঃ ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে খুলনার কয়রা ও দাকোপ উপজেলায় প্রায় দুই হাজার ২৬৫টি ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। পানিতে তলিয়ে গেছে পাঁচ শতাধিক পুকুর ও মাছের ঘের।

রোববার (১০ নভেম্বর) খুলনা জেলা প্রশাসন ও দাকোপ উপজেলা প্রশাসন এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়ে এই দুই উপজেলার কয়েক হাজার গাছপালাও পড়ে গেছে। বিদ্যুৎবিহীন রয়েছে গোটা খুলনা জেলা। মহানগরেও অনেক বাড়িঘর ও গাছপালা ভেঙে গেছে। গাছ পড়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে খুলনা-মোংলা মহাসড়কসহ আরও অনেক সড়কে।

অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’র তাণ্ডবে রোববার খুলনায় গাছচাপা পড়ে নারীসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত দুইজন হলেন- খুলনার দাকোপ উপজেলার দক্ষিণ দাকোপ গ্রামের সুভাষ মণ্ডলের স্ত্রী প্রমিলা মণ্ডল (৫২) ও খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি গ্রামের আলমগীর হোসেন (৩৫)।

খুলনার দাকোপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবদুল ওয়াদুদ বাংলানিউজকে জানান, শনিবার (৯ নভেম্বর) রাতে প্রমীলা দক্ষিণ দাকোপ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন শেল্টারে ছিলেন। সকাল ৯টা-সাড়ে ৯টার দিকে নিজের বাড়িতে যান তিনি। সেসময় একটি গাছ তার উপরে পড়লে প্রাণ হারান প্রমীলা।

এদিকে দিঘলিয়া থানার ওসি মঞ্জুর মোর্শেদ জানান, দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি গ্রামে সকাল ৯টার দিকে বাসার পাশে অবস্থান করছিলেন আলমগীর হোসেন। এসময় একটি সজনে গাছ ভেঙে তার ওপরে পড়লে আহত হন তিনি। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে দিঘলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও জানান, একই গ্রামে গাছ পড়ে আবদুর রহমান নামে এক ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

রোববার দুপুরে ঝড়ের প্রভাব কমে যাওয়ায় আশ্রয়কেন্দ্রগুলো থেকে মানুষ ঘরে ফিরতে শুরু করেছে।

লিংক কম্পিউটার যশোর এর বিজ্ঞাপন

About Bangla Vhor

mm

Check Also

রূপগঞ্জে চনপাড়া পূর্ণবাসন কেন্দ্রে মাদক বিরোধী র‌্যালি

শাকিল আহম্মেদ, রূপগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মাদকের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে নারায়ণগঞ্জ ১ আসনের সংসদ …